5টি ভারতের সবচেয়ে বেশি ভীতিপ্রদ রেলস্টেশন

1
480

ভারতীয় রেল বিশ্বের দীর্ঘতম নেটওয়ার্কের অন্যতম। এটি যাত্রীদের প্রাকৃতিক দৃশ্যের থেকে ভুতুড়ে সব ধরনের অভিজ্ঞতা প্রদান করে! তবে কয়েকটি রেলস্টেশনকে ভীতিপ্রদ বলে মনে করা হয়। আমরা এমন 5-টি রেলস্টেশনের কথা বলছি।

বারোগ স্টেশন (BOF), শিমলা

Barog railway station
স্টেশনের কাছে সুড়ঙ্গ নং. 33 বা বারোগ সুড়ঙ্গে অবস্থিত, যেখানে অনেক স্থানীয় লোকই অলৌকিক কার্যকলাপ লক্ষ্য করেছে। ব্রিটিশ ইঞ্জিনিয়ার কর্নেল বারোগ যিনি সুড়ঙ্গ নির্মাণ করেছিলেন তিনি আত্মহত্যা করেছিলেন এবং তাঁকে সুড়ঙ্গের কাছাকাছি সমাধিস্থ করা হয়। তার পরে পরেই অনেকেই সুড়ঙ্গের মধ্যে তাঁর উপস্থিতি অনুভব করে।
বেগুনকোদর স্টেশন, পশ্চিমবঙ্গ

Begunkodor railway station
অনেক যাত্রী অসময়ে স্টেশনে একজন মহিলার প্রেতাত্মা দেখার কথা বলার পরে এই রেলওয়ে স্টেশনটি 42 বছর ধরে বন্ধ রয়েছে। মানুষ বিশ্বাস করত যে, কোন লোক একবার প্রেতাত্মা দেখার পরেই নাকি মারা যায়। যাত্রীরা এই স্টেশনে যাতায়াত বন্ধ করে দেয় এবং কর্মচারীও পালিয়ে যায়। 2009 সালে রেলওয়ে স্টেশন পুনরায় খোলা হলেও যাত্রীদের মন থেকে ভয় এখনও যায়নি।
নৈনি স্টেশন (NYN), উত্তরপ্রদেশ

Naini railway station
নৈনি কারাগারে অনেক বিপ্লবীদের নির্যাতন করা হয় এবং মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয় যা রেলওয়ে স্টেশনের কাছে অবস্থিত। মানুষ বিশ্বাস করে যে তাদের আত্মারা এখনও স্টেশনের চারপাশে ঘুরে বেড়ায় এবং রাত্রিবেলা পিছু করে।
চিত্তর স্টেশন (CTO), অন্ধ্র প্রদেশ

Chittoor railway station
লোকে বিশ্বাস করে যে স্টেশনে হরি সিং নামে একজন সিআরপিএফ অফিশিয়ালের আত্মা তাড়া করে বেড়ায়, যিনি 2013 সালের অক্টোবরে একজন সহকর্মী আরপিএফ কর্মী ও TTE-দের দ্বারা আক্রান্ত হয়েছিলেন। তিনি চিত্তর রেল স্টেশনে নেমে পড়েছিলেন কিন্তু তার মৃত্যু আটকাতে পারেননি।
লুধিয়ানা স্টেশন (LDH), পাঞ্জাব

Ludhiana railway station
মনে করা হয় যে রিজার্ভেশন কাউন্টারের পাশে একটি ছোট ঘরে সুভাষ নামে একজন অফিশিয়ালের আত্মা তাড়া করে বেড়ায়, যিনি 2004 সালে এই ঘরেই মারা যান। এই ঘরে বসা সবাই কিছু না কিছু অলৌকিক ঘটনা ঘটতে দেখেছেন।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here