Insights into simplifying train travel

ভারতের যে ৫টি চাবাগানে অবশ্যই ঘুরতে যাও উচিত

ভারত সব থেকে ভাল চায়ের উত্পাদনকারী হিসাবে বিখ্যাত , যার ফলে বর্তমান সময়ে চা পর্যটনে অনেক বৃধি দেখা গেছে | চা-বাগানের আশেপাশের পরিবেশ খুবই বিস্ময়কর এবং আপনি এখানে খুবই আনন্দ অনুভব করবেন তা নিচিত !

চা পর্যটনের সব থেকে পিক সময় হচ্ছে নভেম্বর থেকে মার্চ | এখানে কিছু সুন্দর চা বাগন সম্বন্ধে জানান হল যা মিস করা চলে না |

Darjeeling Tea Tourism

দার্জিলিং , পশ্চিম বঙ্গ : নিউ জলপাইগুরি থেকে দার্জিলিং হিমালয়ান রেলওয়ে করে দার্জিলিং পৌছন | ভারতের অর্ধেকের বেশি চা আসে দার্জিলিংয়ের চা বাগান থেকে | হ্যাপি ভ্যালি চা বাগন এবং গ্লেনবার্ন চা বাগানে অবশ্যই ঘুরতে হয় |

Jorhat Tea Estate

জোরহাট , আসাম : আসামের ব্রহ্মপুত্র উপত্যকায় স্থিত জোরহাট কে অনেক সময় “বিশ্বের চা রাজধানী” বলা হয় যা জোরহাট রেলওয়ে স্টেশন থেকে কিছু দুরে অবস্থিত | আড্ডাবাড়ি চা বাগানের পাশে অবস্থিত ওয়াইল্ড মাহসির ও একদম ছবির মতম হচ্ছে এবং চা পর্যটনের অন্যতম গন্তব্য হচ্ছে |

Munnar Tea Estate

মুন্নার , কেরালা : যখন আপনি কেরালার জনপ্রিয় হিল স্টেশনে ডুকবেন তখন মাইলের পর মাইল ঘন চায়ের আবাদ আপনার অভ্যর্থনা করবে |আলুভা রেলওয়ে স্টেশন থেকে চা বাগান গুলি খুবই কাছে | আপনি নাল্লাথাননি এস্টেট এবং কুন্ডালে চা বাগানে যেতে পারেন চা তুলবার এবং চা বানাবার প্রক্রিয়া দেখার জন্য |

Conoor Tea Estate

কুন্নুর , তামিলনাডু : কুন্নুর জানা যায় তার গার এবং সুগন্ধিত চায়ের জন্য এবং এখানে পৌছবার জন্য কোয়েমবাতুর থেকে নীলগিরি মাউন্টেন রেলওয়ে ধরুন | এখানে সব থেকে ভালো ঘোরার জায়গা হচ্ছে হায়ফিল্ড চা ফ্যাক্টরি , ট্রানকুইলিটি টি লাউঞ্জ এবং সিঙ্গারা চা বাগান |

Palampur Tea Estate

পালামপুর , হিমাচল প্রদেশ : ধউলাধার পাহাড়ের কোলে সব থেকে বড় চা বাগান আছে এবং একে উত্তর ভারতের চায়ের রাজধানী বলা হয় | এখানকার চা বাগান গুলি খুবই সুন্দর যার আশপাশে পাইন গাছ আছে ও চা বাগানে আচ্ছে ডালান | কাঙ্গরা পৌছবার জন্য পাঠানকোট থেকে কাঙ্গরা ভ্যালি রেলওয়ে ধরুন | চা বাগান গুলি রেলওয়ে স্টেশনের থেকে খুব কাছে |

আপনার জীবনের চাপ পাহাড়ের ডালানের চা বাগান এবং তার মধ্যে দিয়ে বয়ে যাওয়া ঝরনা দূর করে দেয় |


Leave a Comment

Required fields are marked *