Insights into simplifying train travel

এই সব জায়গাতে ঘুরে আসার পরিকল্পনা সহজেই বানাতে পারবেন

নতুন বছরে আমরা সবাই আনন্দ করি এবং আমরা অনেকেই নতুন বছরে কী করব তা ঠিক করে নিন, তবে যারা বেড়াতে ভালোবাসেন তারা কিন্তু সবার আগে দেখে নেন কখন লম্বা সপ্তহান্তের ছুটি পড়ছে! আপনার কাজকে একটু হালকা করে দিতে আমরা এখানে এমন কিছু জায়গার উল্লেখ করছি যেখানে বেড়াতে যাওয়ার পরিকল্পনা আপনি সহজেই বানিয়ে নিতে পারবেন। তাহলে আর অপেক্ষা করবেন না, প্রস্তুত হয়ে নিন!

ইয়ারকুড

Yercaud

চুলের পাকের মতো বাঁক আর প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যে ভরা, ইয়রাকুড হাতে অল্প সময় নিয়েই ঘুরে আসতে পারবেন এবং খরচও সাধ্যের মধ্যেই।
দর্শনীয় স্থান: পাগোডা পয়েন্ট, লেডিজ শিট ভিউ পয়েন্ট, ইয়ারকুড হ্রদ, কিলিয়ুর জলপ্রপাত এবং শিভারয় পর্বতমালা
নিকটবর্তী রেলস্টেশন: সালেম

দেবীকুলাম

Devikulam

এই শান্ত এবং নির্মল হিল স্টেশন প্রকৃতি প্রেমীদের কাছে স্বর্গ। পান্নার মতো ব্যাক-ওয়াটার, সোনালী সমুদ্রসৈকত, সবুজ অরণ্য, জলপ্রপাত এবং এক বড় নীল হ্রদ দিয়ে সাজানো দেবীকুলাম অবশ্যই দেখার মতো এক জায়গা।

দর্শনীয় স্থান: দেবীকুলাম হ্রদ, থুভানাম হ্রদ, পাল্লিভাসাল জলপ্রপাত এবং চিন্নার বন্য অভয়ারণ্য।
নিকটবর্তী রেলস্টেশন: এরনাকুলম

সাপুতারা পর্বতমালা

Saputara

চোখ ধানানো প্রাকৃতিক দৃশ্য ও অসংখ্য ভালো পর্যটক পয়েন্ট এই হিল স্টেশনে আপনার সপ্তাহান্তের ছুটিকে স্মরণীয় করে রাখবে।

দর্শনীয় স্থান: সূর্যোদয় ও সূর্যাস্ত পয়েন্ট, সাপুতারা হ্রদ, রোজ গার্ডেন, পুষ্পক রোপওয়ে এবং ভান্সদা জাতীয় উদ্যান
নিকটবর্তী রেলস্টেশন: ওঘাই

দমন ও দিউ সমুদ্রসৈকত

Daman & Diu

গুজরাত থেকে অল্প দূরেই রয়েছে এই ইউনিয়ন অঞ্চল দমন ও দিউ। এখানে সময় কাটানোর মতো অনেক কিছুই আছে। আপনি এখানে সামুদ্রিক খাবার ও ওয়াটার-স্পোর্টসের মজা নিতে পারবেন।

দর্শনীয় স্থান: দেবকা সমুদ্রসৈকত, জ্যাম্পোর সমুদ্রসৈকত, নাগোয়া সমুদ্রসৈকত, ঘোঘালা সমুদ্রসৈকত এবং দিউ দুর্গ
নিকটবর্তী রেলস্টেশন: ভেরাভাল

হাম্পি

Hampi

হাম্পির সুন্দরতা ও ঐতিহ্য জীবনের থেকে বড় এবং এখানে পর্যটকেরা অনেক কিছু নিয়ে মেতে থাকতে পারবেন।

দর্শনীয় স্থান: ভিথালা মন্দির, গেজ্জালা মানতাপা, ভিরুপক্ষ মন্দির, লোটাস মহল এবং হাজারা রামা মন্দির।
নিকটবর্তী রেলস্টেশন: হসপেট

শেত্তিহাল্লি চার্চ

Hasan Rosary Church

বছরের অধিকাংশ সময় এই চার্চ জলের তলায় থাকে। এখানে বেড়াতে আসার ভালো সময় হল বর্ষাকাল, কারণ তখন চারিদিক সবুজে ভরা থাকে এবং তার পাশে এই অনন্য সাধারণ চার্চকে দেখতে দারুণ লাগে।

দর্শনীয় স্থান: শেত্তিহাল্লি চার্চ, বেলুর, হালেবিড এবং শ্রাবনাবেলাগোলা
নিকটবর্তী রেলস্টেশন: যশবন্তপুর

শিবসাগর

Sibsagar

আসামের এক সুন্দর জায়গা। ভারতের মধ্যে একমাত্র শিবসাগরেই আপনি কলোসিয়াম দেখতে পাবেন এবং তার পাশাপাশি দেখতে পাবেন অনন্য সাধারণ পাথরের ব্রিজ।

দর্শনীয় স্থান: শিব ধোলে, রাংঘার, শিবসাগর ট্যাঙ্ক, কারেং ঘর, তালাতাল ঘর, নামডাং স্টোন ব্রিজ এবং চারাইডিও পারবাত।
নিকটবর্তী রেলস্টেশন: সিমালগুড়ি

শিলং

Shillong

বছরের এই সময়ে ঘুরতে যাওয়ার অন্যতম সেরা হিল স্টেশন। শিলং হল চোখ ধাঁধানো জায়গা, এই জায়গা জলপ্রপাত এবং সবুজে ভরা।

দর্শনীয় স্থান: উমিয়াম হ্রদ, রুট ব্রিজ, মাওলিংনং গ্রাম, গারো পর্বতমালা, মাওফলং অরণ্য এবং লিউ ডুহ বাজার।
নিকটবর্তী রেলস্টেশন: গুয়াহাটি


Leave a Comment

Required fields are marked *