Simplifying Train Travel

ট্রেনের টিকিট বাতিল করার নিয়ম সম্পর্কে যা আপনি জানতে চান:

টিকিট বাতিল করার পর ফেরত পাওয়া টাকার পরিমাণ দেখে আমি নিশ্চিত আপনি মর্মাহত। আসলে টিকিট আমাদের প্রায়ই কাটতে হয়। তাই বাতিল করার নিয়ম সম্পর্কে আমাদের জানা না-ও থাকতে পারে। তাই Rail Yatri-র মাধ্যমে আমরা টিকিট বাতিল করার নিয়মগুলো সহজভাবে জানাচ্ছি। যাতে ক্রেতাদের বুঝতে সুবিধা হয়।

বাতিল করার জন্য কত টাকা কেটে নেওয়া হয়?

যে সমস্ত যাত্রীদের টিকিট কনফার্মড হয়ে গিয়েছে অথবা আরএসি হয়ে আছে তাদের টিকিট নিজেদের বাতিল করতে হবে। আর যে যাত্রীদের টিকিট ওয়েটিং লিস্টে আছে তাদের ক্ষেত্রে রিজার্ভেশন চার্ট প্রকাশিত হওয়ার সময়েও যদি টিকিট কনফার্মড না হয় তখন সেই টিকিটটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় বাতিল হয়ে যাবে। সেই যাত্রীরা পুরো টাকা ফেরত পাবেন।ট্রেন ছাড়ার ৪৮ ঘণ্টা আগে কনফার্মড টিকিট বাতিল করা হলে ফেরত পাওয়া টাকার অঙ্ক ভেঙে ভেঙে দেওয়া হল:

স্লিপার ক্লাসের টিকিট বাতিল হলে তার ফেরতযোগ্য টাকার অঙ্ক: প্রত্যেক যাত্রী পিছু ১২০ টাকা (কনফার্মড টিকিট), ৬০ টাকা (আরএসি অথবা ওয়েটিং লিস্ট)।

3এসি টিকিট বাতিল হলে তার ফেরতযোগ্য টাকার অঙ্ক: প্রত্যেক যাত্রী পিছু ১৮০ টাকা (কনফার্মড টিকিট), ৬০ টাকা (আরএসি অথবা ওয়েটিং লিস্ট)

২এসি টিকিট বাতিল হলে তার ফেরতযোগ্য টাকার অঙ্ক: প্রত্যেক যাত্রী পিছু ২০০ টাকা (কনফার্মড টিকিট), ৬০ টাকা (আরএসি অথবা ওয়েটিং লিস্ট)

১এসি টিকিট বাতিল হলে তার ফেরতযোগ্য টাকার অঙ্ক: প্রত্যেক যাত্রী পিছু ২৪০ টাকা (কনফার্মড টিকিট), ৬০ টাকা (আরএসি অথবা ওয়েটিং লিস্ট)

আংশিকভাবে টিকিট বাতিল করা কী এবং তার নিয়ম কী?

আংশিকভাবে টিকিট বাতিল করা মানে একজন বা দু’জনের টিকিট বাতিল করে বাকিদের টিকিট অক্ষত রাখা। উদাহরণ হিসাবে বলা যায়, হয়তো মোট পাঁচজনের টিকিট কাটা হয়েছে। তার মধ্যে থেকে একজন বা দু’জনের টিকিট বাতিল করে বাকিদেরটা রেখে দেওয়া। আরও একভাবে বলা যায় যে, পাঁচজনের মধ্যে হয়তো দু’জনের টিকিট কনফার্মড হয়েছে। একজনের টিকিট আরএসি হয়ে আছে। আর দু’জনের টিকিট ওয়েটিং লিস্টে থেকে গিয়েছে। তখন আরএসি-তে থাকা আর ওয়েটিং লিস্টে থাকা যাত্রীদের টিকিট আপনি আংশিকভাবে বাতিল করতে পারেন। সেক্ষেত্রে কনফার্মড টিকিট নিয়ে বাকি দু’জন যাত্রী নিশ্চিন্তে যাত্রা করতে পারেন।

বাতিল করার পর টাকা পাব কীভাবে?

এটা নির্ভর করে ট্রেন ছাড়ার কতক্ষণ বা কত ঘণ্টা আগে টিকিটটি বাতিল করা হয়েছে তার ওপর।

ট্রেন ছাড়ার ১১৯ দিন থেকে ৪৮ ঘণ্টা আগে টিকিট বাতিল করা হলে

বাতিলের টাকাটি বাদ দিয়ে (১২০ থেকে ২৪০ টাকা, নির্ভর করছে কোন শ্রেণীর টিকিট কাটা হয়েছিল তার ওপর) বাকি টাকাটি ফেরত পাওয়া যাবে।

ট্রেন ছাড়ার ১২ ঘণ্টা আগে টিকিট হাতিল হলে

আপনি ৪৮ ঘণ্টার নির্দিষ্ট সময়সীমা পেরিয়ে গিয়ে ১২ ঘণ্টা আগে টিকিট বাতিল করলেও একটা উল্লেখযোগ্য অংশ ফেরত পাবেন। তবে সেক্ষেত্রে মূল ভাড়ার ২৫ শতাংশ অথবা বাতিল করার জন্য জরিমানার অংশ (যেটা বেশি) কেটে নেওয়া হয়।

ট্রেন ছাড়ার ৪ ঘণ্টা আগে অথবা রিজার্ভেশন চার্ট প্রকাশের সময় টিকিট বাতিল হলে:

সাধারণত ট্রেন ছাড়ার ৪ ঘণ্টা আগে রিজার্ভেশন চার্ট তৈরি করা হয়। তখনই ভারতীয় রেল ঠিক করে কনফার্মড না হওয়া টিকিটের যাত্রীরা ট্রেনে উঠতে পারবেন কি না। তাই রিজার্ভেশন চার্ট প্রকাশিত হওয়ার সময়ে কেউ নিশ্চিত টিকিট বাতিল করা মানে ১২ ঘণ্টার নির্দিষ্ট সময়সীমাও পেরিয়ে গিয়েছে। তখন তার মূল ভাড়া অথবা বাতিল করার জরিমানার অংশ থেকে (যেটা বেশি) ৫০ শতাংশ টাকা কেটে নেওয়া হয়।

টাকা ফেরত পাওয়ার অন্য কারণগুলো:

ওয়েটিং লিস্ট ছাড়াও কোনও যাত্রী অন্য কয়েকটি কারণেও টিকিটের পুরো টাকা ফেরত পেতে পারেন।

ট্রেন বাতিল হলে: যদি আপনার কাটা টিকিটের ট্রেনটি বাতিল হয় সেক্ষেত্রে আপনি পুরো টাকা পাবেন।

ট্রেন দেরিতে চললে: ট্রেন ৩ ঘণ্টার বেশি সময় দেরিতে চলছে। অথবাযে স্টেশন থেকে আপনি ট্রেনে উঠবেন সেখানে যদি ট্রেনটি ৩ ঘণ্টা বা তার বেশি সময় দাঁড়িয়ে থাকে তখন আপনি পুরো টাকা পাবেন। সেক্ষেত্রে স্টেশন মাস্টারের কাছে আপনাকে একটি টিডিআর আবেদন করতে হবে। কিন্তু একবার ট্রেনে উঠলে টিডিআরের কোনও মূল্য থাকবে না।

ট্রেনের যাত্রাপথ যদি বদলে যায়:ট্রেনের যাত্রাপথ যদি বদলে দেওয়া হয় এবং সেই নতুন যাত্রাপথে আপনি যেতে না চাইলে তখন টিকিটের পুরো টাকা আপনি পাবেন। কিন্তু তখনও স্টেশন মাস্টারের কাছে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে আপনাকে টিডিআর আবেদন করতে হবে।

আরও কিছু কারণে টিকিটের টাকার আংশিক ফেরতও হয়:

আরও অনেক পরিস্থিতি আছে যেখানে আপনাকে ট্রেনের টিকিটের টাকার পার্থক্যটা ফেরত দেওয়া হবে।পরিস্থিতি গুলো হল:

কামরার এসি মেশিন কাজ না করলে: আপনি এসি কামরায় যাচ্ছেন। এসি মেশিনটি কাজ করছে না। আপনাকে ট্রেনের টিটিই-কে ডেকে অভিযোগ জানাতে হবে। তাতে যদি এশি মেশিনটি সারানো যায় তাহলে সমাধান হল। না হলে টিটিই-কে এসি কামরার টিকিটের ভা়ড়া ফেরত দিয়ে স্লিপার ক্লাসের ভাড়া নিতে হবে।

আপনার সিট নিচু (স্লিপার) ক্লাসে কনফার্মড হল:আপনি বুক করেছিলেন এসি টিকিট। কিন্তু আপনার সিট কনফার্মড হল স্লিপার ক্লাসে। সেক্ষেত্রে আপনি এসি কামরার টিকিটের টাকা দাবি করতেই পারেন।

এরপরও আমরা জানি আরও কিছু নিয়ম হয়তো এখানে জানাতে পারলাম না। যেগুলো আপনার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হতে পারে। সুতরাং আপনি কেন প্রশ্ন করবেন না? আমরা খুশী হব আপনার প্রশ্নের জবাব দিতে পেরে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *